বুধবার, ২৪ Jul ২০২৪, ১১:৪৬ অপরাহ্ন

ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা
ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা এবং  অনলাইন ও ডিজিটাল মাল্টিমিডিয়া  এর জন্য সম্পূর্ণ  নতুনভাবে সারাদেশ থেকে জেলা, উপজেলা,বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও সরকারি কলেজ,পলিটেকনিকে একযোগে সংবাদকর্মী আবশ্যক বিস্তারিত জানতে ০১৮১৬৩৯৩২২৩

সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে কালিগঞ্জ বসন্তপুর কাস্টমের জব্দকৃত ১৫টি গরু অবশেষে সাড়ে ৪ লক্ষ টাকায় নিলাম সম্পন্ন করা হয়েছে

filter: 0; jpegRotation: 0; fileterIntensity: 0.000000; filterMask: 0; module:1facing:0; hw-remosaic: 0; touch: (-1.0, -1.0); modeInfo: ; sceneMode: Auto; cct_value: 0; AI_Scene: (-1, -1); aec_lux: 123.0; hist255: 0.0; hist252~255: 0.0; hist0~15: 0.0;

ফজলুল হক কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ
সাতক্ষীরা জেলা রাজস্ব অফিসারের সীমাহীন দুর্নীতির মাধ্যমে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ বসন্তপুর কাস্টমের জব্দকৃত লটের ১৫ টি গরু সাড়ে ৪ লক্ষ  টাকা বিনিময় মানুষ দেখানো নিলাম সম্পন্ন করা হয়েছে দরপত্রের মাধ্যমে বিক্রয় করা হয়েছে বলে জানান জেলা রাজস্ব অফিসার আব্দুল হাই ।
সাতক্ষীরা ১৭ ব্যাটালিয়ান নীলডুমুর বিজিবির বর্ডার গার্ড সীমান্ত রক্ষী  বাহিনীর সদস্যদের অধীনে নৌপথ দিয়ে অবৈধভাবে চোরাই পথে ভারত থেকে পারাপার করার সময় সীমান্ত এলাকার বর্ডার গার্ড বিজিবির টহল দলের সদস্যদের হাতে আটক হয় ১৫টি ছোট, বড়, মাঝারি সাইজের  গরু। বুধবার (৫ জুন) বেলা সাড়ে ১২ টায় কালিগঞ্জ উপজেলার  বসন্তপুর বর্ডার গার্ড বিজিবির ক্যাম্প সংলগ্ন বসন্তপুর কাস্টম গোডাউন অফিসে নিলাম সম্পন্ন হয়। সরজমিনে উপস্থিত থেকে জানা গেছে
সাতক্ষীরা ১৭ ব্যাটালিয়ানের আওতাধীন সীমান্ত এলাকার বিজিবির সদস্যদের হাতে আটক হয় ভারতীয় ১৫টি গরু উক্ত আটকৃত গরুর লট নিলামের জন্য গত মঙ্গলবার (৪জুন) বিকালে ওপেন নিলামের জন্য ঘোষণা দিয়ে এলাকা জুড়ে মাইকিং করা হয়।
 বুধবার (৫জুন) নির্ধারিত সময়ে সাতক্ষীরার কাস্টমস এন্ড ভ্যাট  অফিসের সুপারিনটেন্ট আব্দুল হাই, গোডাউন ইন্সপেক্টর মাহবুব আলম এবং কালিগঞ্জ কাস্টম হাউসের ইন্সপেক্টর রাকিব হোসেন নীলডুমুর১৭ ব্যাটালিয়ানের আওতাধীন বসন্তপুর বিজিবি ক্যাম্পের হাবিলদার মহাসিন আলী এবং থানার উপ পরিদর্শক সুদেব ও উপ পরিদর্শক জাহিদ হোসেনের উপস্থিতিতে এ নিলাম কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু এর আগে থেকে অতি গোপনে লটের ১৫ টি নিলাম গরু বিক্রয়ের জন্য দুর্নীতির মাধ্যমে সবকিছু ঠিকঠাক রেখে অতি কৌশল অবলম্বন করে
উক্ত নিলাম সম্পন্ন করার জন্য কালিগঞ্জ উপজেলা সহ পার্শ্ববর্তী  বিভিন্ন উপজেলা থেকে দরপত্রে মাধ্যমে নিলাম অংশ গ্রহণের জন্য বিভিন্ন শ্রেণীর, পেশা, রাজনৈতিক দলের সদস্যরা হাজির হয়।
এ সময় বিভিন্ন এলাকা থেকে ১০জন ব্যক্তি নিলামে অংশ গ্রহণ করেন। প্রায় দুই ঘন্টা ব্যাপী লোক দেখানো ওপেন নিলাম অংশগ্রহণ কারী উপস্থিত ব্যক্তিবর্গ দরপত্রের মাধ্যমে ডাক শুরু হয়। এরমধ্যে সর্বোচ্চ মূল্যে অবশেষে নিলাম ক্রয় করেন কালিগঞ্জ উপজেলার মথুরেশপুর ইউনিয়নের শীতলপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা জমাত আলী সাড়ে ৪ লক্ষ টাকায়  ১৫ টি গরু যারা আনুমানিক মূল্য ৮ লক্ষ টাকার অধিক।
কিন্তু কাস্টম কর্তৃপক্ষ দুর্নীতি করে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ও দুর্নীতিবাজ জেলা রাজস্ব অফিসার আব্দুল হাইএর জোকজাসের মাধ্যমে কোনরকম দায় সেরে খাতা কলমে এবং ব্যাংকে টাকা জমা চালান ফরমে উক্ত নিলামের ১৫ টি গরুর নিলাম ক্রয় ‌দাতা হিসেবে
 শ্যামনগর উপজেলার রমজান নগর ইউনিয়নের ভেটখালি এলাকার তারানীপুর গ্রামের জৈনক আলমগীর হোসেন (বাবু) নামে এক ব্যক্তির নিলাম ক্রয়ের মালিক নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
উল্লেখিত বিষয়ের সম্পর্কে জানতে চাইলে কালিগঞ্জ উপজেলা কাস্টম হাউসের জোন অফিসের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার মোঃ রাকিব হোসেন সাংবাদিকদের জানান সর্বোচ্চ সাড়ে ৪ লক্ষ টাকা এবং ভ্যাট সহ ৫,২৭,৫০০টাকায় সরকারি প্রদত্ত পরিমাণ মূল্য সন্তোষজনক হওয়ায় বসন্তপুর কাস্টম অফিস গোডাউনের নিলাম কর্তৃপক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা জমাত আলী নিকট লটের নিলাম কৃত ১৫ টি গরু হস্তান্তর করা হবে বলে তড়িঘড়ি করে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে সাতক্ষীরার উদ্দেশ্য চলে যান।
 প্রসঙ্গতঃ বেশ কিছুদিন আগে  বিজিবির টহল দলের হাতে আটককৃত ১৫ টি  গরু লটের নিলাম সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে লক্ষ্য পূরণের দাম না উঠায় সর্বশেষে কাস্টম কর্তৃপক্ষ নিলাম বাতিল ঘোষণা  করেন।
 গত সোমবার (৩ জুন) দুপুর ১ টার সময় একই স্থানে উপজেলার বর্ডার গার্ড বিজিবির ক্যাম্প সংলগ্ন বসন্তপুর কাস্টম গোডাউন অফিসে নিলাম দরপত্র হয় । সূত্র মতে জানা গেছে সাতক্ষীরা নীল ডুমুর ১৭ ব্যাটালিয়ানের বর্ডার গার্ড সীমান্ত রক্ষী সদস্যদের হাতে আটক হয়  সীমান্ত এলাকার বিভিন্ন স্থান থেকে মোট ১৫ টি গরু এগুলো একটি লট নিলামের জন্য গত রবিবার (২জুন) দুপুরে ওপেন নিলামের জন্য ঘোষণা দিয়ে পরের দিন এ নিলাম কার্যক্রম শুরু হয়।
উক্ত নিলাম ক্রয় করার জন্য সাতক্ষীরা সহ পার্শ্ববর্তী  বিভিন্ন উপজেলা থেকে নিলামে অংশ গ্রহণ করার জন্য বিভিন্ন শ্রেণীর, পেশা, রাজনৈতিক দলের সদস্যরা হাজির হয়। উক্ত নিলামে কম দামে কিনে নেবে বলে নিজেরা সিন্ডিকেট করে কম দামে ডাক শুরু হয় এতে করে গরু চোরা কারবারিদের সিন্ডিকেট সদস্যরা সর্বশেষ ১৫টি গরু ৪ লাখ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ডাক শেষ করলে লক্ষ্য পূরণ না হওয়ায় কারণে  কাস্টমসের নিলাম কর্তৃপক্ষ তাহা বাতিল করে। জানা গেছে কাস্টম অফিসের ভিত্তি মূল্য ৫ লক্ষ টাকা থেকে শুরু করতে বলেন কিন্তু বিভিন্ন স্থান থেকে জড় হওয়া সিন্ডিকেটের সদস্যরা রাজি না হওয়ায় নিলাম কর্তৃপক্ষ নিলাম কার্যক্রম বন্ধ  ঘোষণা করতে বাধ্য হয়। এখন সকলের একটাই প্রশ্ন কাস্টম অফিসের ভিত্তি মূল্য নির্ধারিত করে দিলেন ৫ লক্ষ টাকা পরবর্তীতে কিভাবে ৮ লক্ষ টাকার গরু সাড়ে ৪ লক্ষ টাকায় নিলাম সম্পন্ন করেন।
কালিগঞ্জ প্রতিনিধি
০১৬১২৩৩৩৬২১

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2022 thedailyagnishikha.com
Design & Developed BY Hostitbd.Com