বুধবার, ২৪ Jul ২০২৪, ১১:২৫ অপরাহ্ন

ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা
ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা এবং  অনলাইন ও ডিজিটাল মাল্টিমিডিয়া  এর জন্য সম্পূর্ণ  নতুনভাবে সারাদেশ থেকে জেলা, উপজেলা,বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও সরকারি কলেজ,পলিটেকনিকে একযোগে সংবাদকর্মী আবশ্যক বিস্তারিত জানতে ০১৮১৬৩৯৩২২৩

সরকার নির্ধারিত বেতন দাবি কোনাবাড়ীতে শ্রমিক বিক্ষোভ, মহাসড়ক অবরোধ

দলিল উদ্দিন, গাজীপুরঃ গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে সরকার ঘোষিত সর্বনিম্ন বেতন সাড়ে ১২ হাজারসহ ছয় দফা দাবিতে বিক্ষোভ করেছে মেইগো বাংলাদেশ লিমিটেড কারখানার শ্রমিকরা। এসময় তার ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করে।

শনিবার (১৩ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে শ্রমিকরা এ বিক্ষোভ করে।

পুলিশ জানায়, কোনাবাড়ী এলাকায় বে-ইকোনমিক জোনে অবস্থিত মেইগো বাংলাদেশ লিমিটেড পোষাক কারখানার শ্রমিকদের বেতন বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) দেওয়া হয়। কিছুসংখ্যক শ্রমিককে সরকার নির্ধারিত সাড়ে ১২ হাজার টাকা বেতন দেওয়া হলেও বেশিরভাগই এ বেতন পায়নি। শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) কারখানা বন্ধ থাকায় শনিবার (১৩ জানুয়ারি) সকালে শ্রমিকরা সকালে যথারিতি কাজে যোগ দেয়। পরে সকাল ৮টার দিকে কাজ বন্ধ করে তারা সরকার নির্ধারিত বেতনসহ ছয় দফা দাবি জানায়।

দাবিগুলো হলো-সরকার নির্ধারিত নতুন বেতন কাঠামো অনুসারে গ্রেড ১ থেকে গ্রেড ৪ এর মধ্যে অন্তভূক্ত করতে হবে। তফসিল ‘ক’ এবং তফসিল ‘খ’ অনুসারে বেতন নির্ধারণ, ১০ ঘণ্টা কর্ম দিবসের পরিবর্তে ৮ ঘণ্টা করা, বেসিক বেতন সরকারি নিয়মে করা, ওভার টাইমের হার সরকারি নিয়ম অনুযায়ী করা এবং অধিকার আদায় আন্দোলরত শ্রমিকদের ছাটাই করা যাবে না।

এসব দাবিতে সকালে চার শতাধিক শ্রমিক কারখানার ভেতরে বিক্ষোভ শুরু করে। পরে তারা ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। খবর পেয়ে কোনাবাড়ী থানা ও শিল্প পুলিশ শ্রমিকদের বুঝিয়ে পৌনে ১০টার দিকে সড়ক থেকে সরিয়ে নেয়। পরে শ্রমিকরা সড়কের পাশে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে।

কারখানা শ্রমিক সফিকুল ইসলাম জানান, সরকার সর্বনিম্ন বেতন সাড়ে ১২ হাজার করে দিয়েছে। কিন্তু কারখানা কর্তৃপক্ষ সেই বেতন সবাইকে দিচ্ছে না। একেক জনকে একেক কথা বলে সেই বেতন দিতে গড়িমসি করছে। এছাড়া অতিরিক্ত কাজ করাচ্ছে কিন্তু ওভার টামের টাকাও দিচ্ছে না।

ওই কারখানার ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মো. খালিদ হাসান জানান, শ্রমিকদের বেতন বাড়ানো হয়েছে কিন্তু তাদের মন মত হয়নি। শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।

কোনাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল ইসলাম জানান, সকালে বে-ইকোনমিক জোনের সামনে শতাধিক শ্রমিক রাস্তায় নেমে আসে। পরে তাদের বুঝিয়ে রাস্তা থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়। বর্তমানে যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2022 thedailyagnishikha.com
Design & Developed BY Hostitbd.Com