রবিবার, ১৪ Jul ২০২৪, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন

ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা
ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা এবং  অনলাইন ও ডিজিটাল মাল্টিমিডিয়া  এর জন্য সম্পূর্ণ  নতুনভাবে সারাদেশ থেকে জেলা, উপজেলা,বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও সরকারি কলেজ,পলিটেকনিকে একযোগে সংবাদকর্মী আবশ্যক বিস্তারিত জানতে ০১৮১৬৩৯৩২২৩

পাবনায় উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারে বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম,অনাচার ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ।

পাবনায় উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারে বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম,অনাচার ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ।

সেলিম মোর্শেদ রানা
পাবনা প্রতিনিধি :-পাবনা সুজানগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলীর বিরুদ্ধে, উপজেলার দশটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের মধ্যে দুলাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম শাহজাহান, তাাঁতবন্দ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন মৃধা, সাগরকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন চৌধরী, রানীনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জি,এম,তৌফিক আলম পীযুষ, মানিকহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিউল ইসলাম, ভায়না ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিন উদ্দিন, আহম্মদপুর ইউনিয়ন
পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, সাতবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন, হাটখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ খান ও সুজানগর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান কল্লোল সহ ১০জন সাক্ষরিত সুজানগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম অনাচার ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ এনে ১৭-০৭-২০২২ইং তারিখে উপ-পরিচালক স্থানীয় সরকার ও জেলা প্রশাসক পাবনা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন।
অভিযোগের ভিত্তিতে জানা যায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলী ও উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনুজ্জামান শাহিনের যোকসাজসে উপজেলা পরিষদের কার্যকরী সদস্যদের অগোচরে দূরবী সন্ধেহ-মূলক ভাবে উপজেলা পরিষদের কোন নিয়ম নীতি তুয়াক্কা না করে এক তরফা ভাবে সমস্ত কার্য পরিচালনা করছেন ।
তারা বলেন কখন কি পরিমান বরাদ্দ আসে তা সদস্যদের জানানো হয় না। সদস্যরা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরোধিতা করলে তাদের প্রকল্প বরাদ্দ থেকে বঞ্চিত করা হয়। তাছাড়া জন্ম নিবন্ধন সংশোধনের ক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাধারণ মানুষকে চরমভাবে হয়রানি করছে । অধিকাংশ ক্ষেত্রে তারা উপজেলা পরিষদের সদস্য হওয়া সত্বেও উপজেলা পরিষদের কার্য বিবরণী সম্পর্কে কিছু জানতে পারে না। কৃষি পূর্ণবাসন কৃষকের মাঝে স্যার বীজ, দুস্থদের মাঝে ঢেউ টিন, গ্রাম পুলিশের বাইসাইকেল বিতরণ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক দুস্তদের মাঝে ঘর বরাদ্দ বিতরণ করার সময় তাদের বলা হয় নাই।
তাছাড়া গত ইউনিয়ন পরিষদের নিবাচিত সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠানে তাদের অবহিত করা হয় নাই। উপজেলা পরিষদের যে সকল মিটিংকরা হয় তাহার কার্যবিবরণী দেওয়া হয় না। উপজেলা রাজস্ব খাতে টাকা ব্যয় করা হয় কিন্তু কোথায় কি ভাবে সে বিষয়ে তাদের সঙ্গে কোন আলোচনা করেন না , জমি হস্তান্তর কর ২% এর টাকা কিভাবে কোথায় কাজ করে সে বিষয়ে সদশ্যদের জানানো হয় না।
উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারের টাকা ১০% থেকে ১৫% টাকা স্ব-স্ব হার্টের কাজ করার কথা থাকলেও তা কোথাও করা হয় নাই ।
২০২১-২০২২ অর্থবছরের উপজেলা উন্নয়ন তহবিলের আওতায় ৯৯,১৯,৭০০/= টাকা প্রকল্প হাতে নেওয়া হয় যাহা ছোট কাজগুলো টেন্ডার দিয়ে আর বড় বড় কাজগুলো পিআইসি ও কোটেশনের মাধ্যমে উপজেলা চেয়ারম্যানের যোগসাজসে বিভিন্ন অনিয়মের মধ্যে দিয়ে টাকা আত্বসাত করছে বলে জানান তারা।
তাছাড়া জাতীয় দিবস যেমন- ২১শে ফেব্রুয়ারি ৭ই মার্চ ২৬ শে মার্চ ১৫ ই আগস্ট ২১শে আগস্ট ১৬ ডিসেম্বর তাদের ডাকা হয় নাই।
গত ১৯-৫ ২০২২ ও ২৭-৬-২০২২ ইংরেজি তারিখে সমন্ময় কমিটির সভায় বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে ১৩ জন সদস্যার মধ্যেই ১১ জন সদস্য হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর না দিলেও আগের মত নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে একতরফাভাবে সমস্ত কার্য পরিচালনা করছে।
তারা লিখিত অভিযোগে সুজানগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনুজ্জামান শাহিন ও সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলীর বিরুদ্ধে সকল অনিয়মের সঠিক তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2022 thedailyagnishikha.com
Design & Developed BY Hostitbd.Com