বৃহস্পতিবার, ২৫ Jul ২০২৪, ০৩:৩৪ অপরাহ্ন

ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা
ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক অগ্নিশিখা পত্রিকা এবং  অনলাইন ও ডিজিটাল মাল্টিমিডিয়া  এর জন্য সম্পূর্ণ  নতুনভাবে সারাদেশ থেকে জেলা, উপজেলা,বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও সরকারি কলেজ,পলিটেকনিকে একযোগে সংবাদকর্মী আবশ্যক বিস্তারিত জানতে ০১৮১৬৩৯৩২২৩

উচ্চ আদালতে মামলা চলমান অবস্থায় প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়া ভূমি দখলে পায়তারা করছে একদল ভূমিদস্যু

মোঃ বিপ্লব হোসেন ফারুক,গাজীপুরঃ নেত্রকোনা পূর্বধলা থানাধীন আগীয়া মৌজাস্হ আগীয়া গ্রামে আব্দুল হেকিম ও আঃ মোতালেব গংদের সাথে পারিবারিক সম্পত্তির ন্যায্য হিস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধের জেরে আদলতে মামলা মোকদ্দমা সৃষ্টি হয়।

এরই সূত্র ধরে একটি আপীল মামলা উচ্চ আদালতে চলমান মামালা নং ৩৫/১৮ আপীলকারী পক্ষ মোতালেব গং বর্তমানে আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে আদালতের রায় ডিগ্রীর বিরোদ্দে অবস্থান নিয়ে একটি প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়া গোপন সমঝোতায় মোতালেব গং সঙ্গবদ্ধতায় বে-আইনি ভাবে জবর দখলের পাঁয়তারা করছে।

সরজমিনে দেখা যায় বিরোধপূর্ণ ভূমিতে মোতালেব গং সেচ পাম দিয়ে পানি তুলে হ্যান্ড ট্রাক্টর দিয়ে চাষাবাদের প্রক্রিয়ায় করছে ইতিপূর্বে এমন অবস্থার প্রেক্ষাপটে উভয় পক্ষের মাঝে সাংঘর্ষিক অবস্থার সৃষ্টি হলে উল্লেখিত থানায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে প্রতিশ্রুতি মোতাবেক উভয় পক্ষের লিখিত আকারে একটি চুক্তিপত্র করা হয় যাহাতে উল্লেখ রয়েছে যে উচ্চ আদালতের চলমান মোকদ্দমা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বিরোধপূর্ণ ভূমিতে পক্ষদ্বয়ের মধ্যে কেহ কোন প্রকার কার্যক্রম করতে পারবেন না।

কিন্তু মোতালেব পক্ষগং চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করে প্রভাবশালী মহলের গোপন চুক্তিতে উল্লেখিত ভূমি দখলে নিতে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে আব্দুল হেকিম গংদের বাড়ির আশপাশ ও উল্লেখিত ভূমিতে অবস্থান নিয়ে এক ভিতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করিয়াছে। এ অবস্থায় সংশ্লিষ্ট জেলার পুলিশ সুপার কে বিষয়টি লিখিত ভাবে অবগত করার পর পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাশেদুল ইসলাম কে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন।

সংশ্লিষ্ট থানার অফিস ইনচার্জ রাশিদুল ইসলাম এস আই আনোয়ার হোসেন কে এর তদন্তভার অর্পণ করেন, এসআই আনোয়ার হোসেন তদন্তবার গ্রহণ করে উভয় পক্ষকে থানায় পুনরায় কাগজপত্র নিয়ে ৬/২/২৪ইং সন্ধ্যায় বসার জন্য ডাকেন, কিন্তু সংশ্লিষ্টত থানার অফিসার ইনচার্জ ব্যস্ততা দেখিয়ে আগামীকাল অর্থাৎ পরদিন ৭/২/২৪ ইং সন্ধ্যা ৬ টায় সময় ও তারিখ নির্ধারণ করেন। এদিকে মোতালেব পক্ষগণ বিভিন্ন এলাকা হতে সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোকজন একত্র করছে বলে বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে। তবে কি সংঘর্ষনিবার্য এখানে এলাকাবাসীর ভাষ্য এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চলছে আলো আঁধারের খেলা তাদের আশঙ্কা যেকোন মুহূর্তে ঘটে যেতে পারে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ সহ জানমালের নানান ক্ষয়ক্ষতি দায়ীকে?

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved ©2022 thedailyagnishikha.com
Design & Developed BY Hostitbd.Com